পানিশূন্যতা রোধের বিকল্প উপায়
শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০১৭   |  ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৪   |   ৫ রবিউল আউয়াল, ১৪৩৯
{{theTime}}
নিউজ রিপোর্টারঃ নিজস্ব প্রতিবেদক

আবহাওয়ার অত্যন্ত বিরূপতার কারণে এই শরৎকালেও গরমটা বেশ ভালোই পড়েছে। সমস্যা হলো এই ধরণের গরমে অনেক ঘাম হয়।এবং এই ঘামের সাথে দেহের প্রয়োজনীয় পানি বের হয়ে যায়। এই সময় বেশি পরিমাণে পানি পান না করলে দেহ পানিশূন্যতায় ভোগে এবং আমরা এই পানির অভাবজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়ি।

অনেকেই আছেন যারা পানি খুব বেশি পান করতে পারেন না। এতে করে দেহের আরও বেশি ক্ষতি হয়। যারা বেশি পানি পান করতে পারেন না তাদের দেহের পানিশূন্যতা প্রতিরোধে করতে হবে কিছু কাজ। এতে করে দেহ পানিশূন্য হবে না এবং পানির অভাবজনিত রোগ থাকবে দূরে।

ফল ও সবজির জুস তৈরি করুন

ফলমূল থেকে শুরু করে কাঁচা খাওয়ার যোগ্য সকল ধরণের সবজির জুস তৈরি করে পান করার চেষ্টা করুন। ফলের সাথে পানি মিশিয়ে ব্লেন্ডারে জুস তৈরি করতে পারেন। অথবা শুধু ফলের জুসও তৈরি করে পান করতে পারেন। এতে করে পানির অভাব পূরণ হবে এবং দেহে ফলের পুষ্টিগুণ প্রবেশ করবে।

পানি সমৃদ্ধ ফল বেশি করে খান

যেসব ফলে পানি বেশি রয়েছে সেসকল ফল প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় রাখুন। বিশেষ করে দুপুরের দিকে এই ধরণের ফলমূল খাওয়ার চেষ্টা করবেন বেশি করে। আর কিছু না পান তো লেবুর রস দিয়ে এক গ্লাস শরবত তৈরি করে পান করে ফেলুন। পানিশূন্যতার হাত থেকে বাঁচবেন।

স্যালাইন পান করুন

ডায়রিয়া বা রোগে পরেই যে শুধু স্যালাইন পান করতে হবে মন কোনো কথা নেই। স্যালাইন হচ্ছে পানিশূন্যতা দূর করার অনেক ভালো একটি পদ্ধতি। হাতের কাছে স্যালাইন রাখুন। এতে পানিশূন্যতা এবং দুর্বলতা দুটোই দূর হবে।

বরফ গায়ে ঘষুন

শুনতে আশ্চর্য মনে হলেও গায়ে বরফ ঘষে নিলেও আপনি পানিশূন্যতার হাত থেকে রক্ষা পাবেন। গায়ে বরফ ঘষলে বডি হিট কমে আসবে এবং দেহ থেকে অতিরিক্ত পানি বের হতে পারবে না। এছাড়াও একটি বরফ মুখে নিয়ে চুষে খেতে পারেন। দেহ ঠাণ্ডা থাকবে।

আর্কাইভ

November 2017

SunMonTueWedThuFriSat
1

2

3

4

5

6

7

8

9

10

11

12

13

14

15

16

17

18

19

20

21

22

23

24

25

26

27

28

29

30

Create Account



Log In Your Account



সদ্য সংবাদ